ফেইক ফেইসবুক গ্রুপ চেনার ৫টি উপায় জেনে রাখুন

ফেইক ফেইসবুক গ্রুপ চেনার ৫টি উপায় জেনে রাখুন

ফেইক ফেইসবুক গ্রুপ চেনার ৫টি উপায় জেনে রাখুন

বর্তমান সময়ে করোনার কারণে অনলাইনের মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় মার্কেটপ্লেসের নাম হলো ফেইসবুক গ্রুপ। এখানে ডিজিটাল পণ্যের পাশাপাশি আমাদের নিত্ত ব্যবহার করার জিনিসপত্রও বাই-সেল করা হয়।

বর্তমান সময় হলো প্রতরণা আর কিংসের।

অনেক মানুষ ফেইক ফেইসবুক গ্রুপে খুলে হাতিয়ে নিচ্ছে অনেক সহজ সরল মানুষের টাকা

আর ভেঙ্গে চিচ্ছে হাজারো মানুষের প্রতি অনলাইনের কাজের বিশ্বাস। সব গ্রুপেই যে প্রতারণা হয় তেমনটা কিন্তু নয়।

অনেক গ্রুপ আছে যেখানে সৎতার সাথে কাজ করা হয়। সেখানে কখনো প্রতারণা হওয়া সম্ভবনা তাকে না।

তাই আপনাদের সঠিক গ্রুপ চেনার উপায় জানা। উপায় জানা থাকলে আপনি কখন প্রতারণার শিকার হবেন না।

যদি আপনি প্রতারণার হাত থেকে বাচতে চান এবং ফেইক ফেইসবুক গ্রুপ চিনতে চান তাহলে এই প্রতিবেদনটি আপনার জন্য।

শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ নিয় প্রতিবেদনটি পরুন তাহলে বুঝতে পারবেন ফেইক গ্রুপ কেমন হয়।

তাহলে দেরি না করে শুরু করা জাক আজকের প্রতিবেদন।

 

ফেইক ফেইসবুক গ্রুপ চেনার ৫টি উপায়

১. গ্রুপের পোস্ট গুলো লক্ষ করুন

আপনি যদি ফেইক গ্রুপের পোস্ট গুলো ভালো করে লক্ষ করে তাহলে বুঝতে পারবেন এটি ফেইক গ্রুপ কিনা।

কারণ ফেইক গ্রুপের পোস্ট গুলো সাধারণ আনকমন হয়ে থাকে। সেই গ্রুপে প্রতারণা বিষায়ক পোস্ট করা হয়ে থাকে।

শিক্ষামূলক কোনো পোস্ট থাকে না। যদি এমন কোনো ফেইসবুক গ্রুপ দেখে থাকেন তাহলে সেই গ্রুপ থেকে আপনি এরিয়ে চলুন।

সেই গ্রুপে কোনো প্রকার লেনদেন করবেন না। কারণ লেনদেন করলেই প্রতারণার শিকার হতে পারেন।

ফেইক গ্রুপ চেনার এটি কমমাত্র সহজ উপায়। আপনি এই উপায় ব্যবহার করে ফেইক গ্রুপ চিনতে পারবেন খুব সহজেই।

 

২. গ্রুপের লাইক, কমেন্ট দেখুন

ফেইক গ্রুপ চেনার আরেক উপায় হলো গ্রুপের লাইক, কমেন্ট কেমন হয় সেটি দেখে।

এভাই আপনি একটি ফেইক গ্রুপ চিনতে পারবেন। যদি কোনো গ্রুপ ফেইক হয় তাহলে সেই গ্রুপে লাইক কমেন্ট খুব বেশি থাকেনা।

কিন্তু যে গ্রুপ সৎ হয় সেই গ্রুপে অনেক বেশি লাইক এবং কমেন্ট থাকে।

আর সেখানের কমেন্ট গুলো থেকে অনেক কিছু শেখা যায়।

তাই আপনি যদি ফেইক গ্রুপ চিনতে চান তাহলে এই বিষয়টি প্রয়োগ করতে পারেন।

 

৩. এডমিনের কথা চেক করুন

কোনো গ্রুপ ফেইক কিনা সেটি চেনার উন্নতম মাধ্যম হলো সেই গ্রুপের এমিনের এর সাথে ভালো

করে কথা বলে চেক করে নিন যে গ্রুপটি ফেইক কিনা। আপনি গ্রুপের এডমিনের সাথে কথা

বলার মাধ্যমেই বুঝতে পারবেন এটি ফেইক কিনা। যদি গ্রুপটি ফেইক হয় তাহলে আপনার কথাগুলোকে সে এরিয়ে চলার চেষ্টা করবে।

অথবা আপনি যে বিষয়ে জানতে চান সেই বিষয়ে আপনাকে জানাতে ইচ্ছুক থাকবে না।

আবার আপনি এমন কথা বর্তা পান তাহলে সেই গ্রুপ থেকে এরিয়ে চলার চেষ্টা করুন।

এভাবে কথা বলতে না পারেন তাহলে প্রয়োজনে আপনি তাকে ফোন দিন।

যদি আপনার ফোনও না ধরে তাহলে বুঝবেন যে গ্রুপটি ফেইক। আর এভাবেই আপনি একটি ফেইক গ্রুপ চিনতে পারবেন।

 

৪. মেম্বার কত জন আছে লক্ষ করুন

আপনি ফেইক গ্রুপ চিনতে হলে আরো একটি উপায় রয়েছে সেটি হলো গ্রুপের মেম্বার কত জন সেটি লক্ষ করে।

যে গ্রুপের মেম্বার যত বেশি থাকবে সেই গ্রুপটি ফেই হবে না আর যদি গ্রুপের মেম্বার এর সংখ্যা কম

তাকে তাহলে বুঝবে এটি ফেইক গ্রুপ আর যতটা সম্ভাব সেই গ্রুপ থেকে দূরে থাকবেন।

অনেক সময় অনেক গ্রুপ বেশি মেম্বারযুক্ত কিনে সেটার নাম পরিবর্তন করে এডমিন ডিল করানোর জন্য রেডি করে।

একজন তাদেরকে অবশ্য অনেকটাই পরিশ্রম করতে হয়।

দেখা যাচ্ছে যে, অন্য দেশের কোন বড় গ্রুপ কম টাকায় কিনে সেটার নাম পরিবর্তন করে।

তারপর সেটাতে শুরুতেই যে এডমিন করার জন্য বলে বিষয়টা এমন নয়। তারা প্রথমে নিয়মি বেশ কিছু পোস্ট করেন।

আনুমানিক বিভিন্ন আইডি থেকে ১০০-২০০ টার মত পোস্ট করে থাকে।

তারপর তারা এডমিন ডিল মানে নিজের একটা একাউন্ট থেকে আরেকটা একাউন্টে টাকা ট্রান্সফার করে সেটার স্ক্রিণশর্ট দেয়।

এরকম পোস্ট করে আনুমানিক ৩০-৪০ টার মত। তখন তাদের কাছে কাজটা অনেক সহজ হয়ে যায় যে,

তারা যে কাউকে তখন বলতে পারে তাদের ওখানে ডিল করার জন্য।

কারণ এডমিন ডিল করার কিছু চিত্র আছে আবার কিছু স্ক্রিনশর্ট দেওয়া থাকে।

নতুন মেম্বার হলে অবশ্যই আপনিও সেখানে ডিল করতে চাইবেন।

আর আপনার পরিচিত তেমন কেউ না থাকলেও আপনাকে এমন

একটা প্রলোভন দেখাবে যেটাতে আপনি ডিল করার জন্য বাধ্য থাকবেন বলা চলে।

 

>> ফেইক ফেইসবুক গ্রুপ চেনার ৫টি উপায় জেনে রাখুন

বিষয়টা আসলে আমাদেরকে বুঝতে হবে এবং শুরুতে এমন যদি হয় তাহলে সেই সব আইডিগুলোকে চেক করতে হবে।

মানে সেই সব আইডির মেয়াদ কত দিনের এবং সেই সব আইডিগুলো আসলে কতদিন আগের খোলা।

এভাবে যদি আপনি দেখে নিতে পারেন তাহলে অনেক সময় চিন্তা মুক্ত থাকতে পারবেন।

তবে আমার মতে একটা গ্রুপে এডমিন ডিল করার আগে অবশ্যই আপনি এক মাসের মত সময় নিয়ে এডমিন দের একটিভিটি চেক করে নেন।

এক মাস নিয়মিত আপনি চেক করলেই বুঝতে পারবেন বিষয়টা আসলে কেমন।

আমার কাছে মনে হয় যে, যেসব গ্রুপ এডমিন ডিল করায় তারা খুব বেশি দিন টিকতে পারে না।

অথবা টিকলেও তারা কম সময়েই নাম পরিবর্তন করার পাশাপাশি অনেক সময় লসও করে যদি

এডমিন ডিলের সময় কোন বড় ব্যক্তির কাছে ধরা না খায়।

অনেক সময় আছে অনেকেই বড় বড় কাজ করে থাকে তারা অনেক সময় এমন সমস্যায় পড়েন।

 

৫. গ্রুপের রিসেস্ট পারফমেন্স লক্ষ করুন

সর্বশেষে আপনি যে ভাবে ফেইক গ্রুপ চিনবে সেটি হলো গ্রুপের রিসেন্ট পারফমেন্স।

এটি হলো বর্তমানে গ্রুপটি কেমন চলছে বা সকলের কাছে গ্রুপটি পরিচিতি কিনা সেটি লক্ষ করুন।

এমনকি প্রয়োজন হলে গ্রুপের মেম্বারদের সাথে কথা বলুন। তাদের কাছ থেকে গ্রুপের পারফমেন্স সম্পর্কে জানুন।

যদি পজেটিভ পারফমেন্স পান তাহলে আপনি সেই গ্রুপের সাথে লেনদেন করতে পারেন।

আর যদি পারফমেন্স ভালো না হয় তাহলে সেই গ্রুপের থেকে দূরে থাকুন। কারণ গ্রুপটি ফেইক হওয়া সম্ভাবনা থাকে।

গ্রুপের সাথে বেশ কিছুদিন যুক্ত থাকলেই বোঝা যায় গ্রুপটা কেমন ছিল।

আসলে এজন্য আমাদেরকে নিয়মিত গ্রুপের আপডেটটা লক্ষ্য রাখতে হবে।

 

>> গুগল অ্যাডসেন্স ছাড়াও অনলাইনে আয় করার ৯টি উপায়

আর যে কোন লেনদেন করার শুরুতেই আপনাকে অবশ্যই সামান্য পরিমাণে লেনদেন করতে হবে।

মানে কম টাকার লেনদেন করতে হবে। আপনি যখন অভিজ্ঞ হয়ে যাবেন। মানে গ্রুপে অনেক দিন হয়ে

যাবেন তখন আপনি বেশি টাকার লেনদেন করতে পারবেন। আর শরুতে কম কম করে তাদের অবস্থানটাও বোঝা যায়।

এভাবে আপনি গ্রুপকে নিয়মিত কিছুদিন মনিটরিং করলে সেই গ্রুপ সম্পর্কে ভালো ধারণা পাবেন আশা করি।

বর্তমান সময়ে অনেকেই আছেন যারান এসব কাজগুলো না করে সামান্য কম টাকার লোভে পড়ে হুট করেই লেনদেন করে।

আর যা হবার তাই হয় তখন। আসলে আমরা নিজেদের ভুলের জন্যই ফাদে পড়ি নিয়মিত।

আর অন্যদেরকে সচেতন করার আগে আমাদের নিজেদেরকে অবশ্যই সচেতন হতে হবে।

 

অনলাইন জগতে আপনি নতুন হয়ে থাকলে লেনদেন করার আগে অবশ্যই সময় নেন।

এবং একটা নির্দিষ্ট সময় নিয়ে আপনি লেনদেন করুন এতে করে আপনি নিয়মিত ভালো করতে পারবেন।

আর আমিও এই কাজটাই করি অনেক সময়। যখন কারো সাথে লেনদেন করি তখন

আমি তার অবস্থাটা আগে বুঝে নেই এবং নিয়মিত কিছুদিন তার আইডিটা বা সে যদি কোন গ্রুপে থাকে

তাহলে সেটা চেক করি এভাবে কিছুদিন যদি দেখা যায় তাহলে অনেক ভালো ধারণা পাওয়া যায়।

শেষ কথা

এই ছিলো আজকের সংক্ষিপ্ত প্রতিবেদন ফেইক ফেইসবুক গ্রুপ চেনার উপায়।

আরো অনেকগুলো উপায় রয়েছে তার মধ্যে এগুলোই উন্নতম।

প্রতিবেদন থেকে আপনি যদি কোনো প্রকার সাহায্য পেয়ে তাকেন তাহলে কমেন্টে জানিয়ে দিবেন। ধন্যবাদ

One Comment on “ফেইক ফেইসবুক গ্রুপ চেনার ৫টি উপায় জেনে রাখুন”

Leave a Reply

Your email address will not be published.